আদিবাসী কিশোরীকে ধর্ষণের প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল

রামগড়ে পাহাড়ি কিশোরীকে ধর্ষণের প্রতিবাদে ও ধর্ষণকারী মো. আব্দুল মান্নান প্রকাশ মনু কে অবিলম্বে গ্রেফতার ও শাস্তির দাবিতে এলাকাবাসী উত্তাল হয়ে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে।

শুক্রবার ৬ মার্চ সকালে এলাকাবাসী রামগড় উপজেলার বৈদ্য পাড়া এলাকায় বিক্ষোভ মিছিল বের করে।

এ সময় ‌‘আমার বোন ধর্ষণ কেন-প্রশাসনের জবাব চাই; প্রশাসনের নাকের ডগায়-আব্দুল মন্নান ঘুরছে কেন; ধর্ষণকারী আব্দুল মন্নানকে- গ্রেপ্তার কর, করতে হবে’ ইত্যাদি স্লোগানে মিছিলটি বৈদ্য পাড়া বিজিবি ক্যাম্প এলাকা ঘুরে বনবিহার এলাকায় সংক্ষিপ্ত এক প্রতিবাদ সমাবেশের মধ্য দিয়ে শেষ হয়।

এসময় এলাকাবাসীর পক্ষে মংচি মারমা, আনু প্রু মারমা, ধংপ্রু কার্বারি ও রত্না বড়ুয়া প্রমূখ সংক্ষিপ্ত বক্তব্য রাখেন।

বক্তারা বলেন, ঘরে একা পেয়ে কিশোরীকে জোর করে তুলে নিয়ে ধর্ষণের ঘটনা খুবই উদ্বেগজনক। এ ঘটনা প্রমাণ করে নারীরা নিজের ঘরেও আর নিরাপদ নয়।

অপরাধীদের দৃষ্টান্তমূলক সাজা না হওয়ায় পার্বত্য চট্টগ্রামসহ সারা দেশে নারী নির্যাতন-ধর্ষণ, খুনের ঘটনা বৃদ্ধি পেয়েছে বলে তারা অভিযোগ করেন।

বক্তারা অবিলম্বে কিশোরীর ধর্ষক আব্দুল মান্নান মনুকে গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান।

উল্লেখ্য, গত (৪ মার্চ) বুধবার বিকালের দিকে রামগড় সদর ইউপি’র বেলতলা (বড় খেদা) এলাকায় ওই কিশোরীকে বাড়িতে একা পেয়ে মো. আব্দুল মান্নান জোরপূর্বক তুলে নিয়ে যায়। এরপর পার্শ্ববর্তী জঙ্গলে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণের পর মৃত ভেবে কিশোরীকে ফেলে রেখে চলে যায় ধর্ষক আব্দুল মান্নান।

পরে জ্ঞান ফিরে এলে দিবাগত রাত আড়াটার সময় ভিকটিম ওই কিশোরী চিৎকার করতে করতে বাড়ির উদ্দেশ্যে রওনা দেয়। এ সময় কিশোরীর চিৎকার শুনে তার পিতা তাকে উদ্ধার করে বাড়িতে নিয়ে আসেন।

এদিকে ধর্ষণ ঘটনায় কিশোরীর মা বাদী হয়ে গতকাল (৫ মার্চ) বৃহস্পতিবার রামগড় থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা দায়ের করেন।