উপহার পাঠানোর নামে প্রতারণা : শাহজালালে নাইজেরিয়ান আটক

যুক্তরাজ্য থেকে পাঠানো ভুয়া উপহার সামগ্রী হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের কাস্টমস থেকে ছাড়ানোর নামে প্রতারণার ফাঁদ পেতে বিভিন্ন সময়ে বাংলাদেশি নারীদের কাছ থেকে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগে এক নাইজেরিয়ান নাগরিককে গ্রেফতার করেছে বিমানবন্দর আর্মড পুলিশ।

আটক ব্যক্তির নাম- জশুয়া চুকউজিয়োক (৩২) ওরফে ডেভিড। বৃহস্পতিবার (২০ ফেব্রুয়ারি) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে বিমানবন্দর গোলচত্বর এলাকা থেকে তাকে আটক করা হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করে বিমানবন্দর আর্মড পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপারেশনস অ্যান্ড মিডিয়া) আলমগীর হোসেন জানান, দীর্ঘদিন ধরে ঢাকায় অবস্থানরত নাইজেরিয়ান এবং আফ্রিকান নাগরিকদের একটি চক্র সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক, ইনস্টাগ্রাম এবং হোয়াটসঅ্যাপে নারীদের সঙ্গে ম্যাসেজ আদান-প্রদানের মাধ্যমে সখ্যতা তৈরি করে। আটক প্রতারক বোঝায়, তিনি ইউকেতে (যুক্তরাজ্য) থাকেন। একসময় তিনি ঐ নারীর জন্য কিছু উপহার পাঠান বলে মিথ্যা প্রলোভন দেন। পরবর্তীতে ওই উপহার কাস্টমস থেকে ছাড়ানোর কথা বলে টাকা পাঠাতে বলে। এভাবে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছিলো সংঘবদ্ধ চক্রটি।

এই ধরনের প্রতারণার শিকার এক নারী বিমানবন্দর আর্মড পুলিশকে বিষয়টি জানান। পরবর্তীতে সকালে বিমানবন্দরে ফাঁদ পেতে ওই নাইজেরিয়ান নাগরিককে আটক করা হয়।

গত ১৭ ফেব্রুয়ারি সিরাজগঞ্জের সলঙ্গা থেকে এক নারী ৫০ হাজার টাকা ডাচ বাংলা ব্যাংকের মাধ্যমে পাঠান। আজ দ্বিতীয় কিস্তি নিতে আসলে বিমানবন্দরে হাতেনাতে আটক করা হয় জশুয়াকে।

আটক জশুয়া গত বছরের ৬ নভেম্বর ঢাকায় আসেন। বাংলাদেশ হাইকমিশন নাইরোবি থেকে ১৫ মাসের মাল্টিপল এন্ট্রি ভিসা নিয়ে আশ্রয় নেন বসুন্ধরা আবাসিক এলাকায়।

ইমিগ্রেশন বিভাগ থেকে জানা যায়, বাংলাদেশ তার ঠিকানা মিরপুরের পল্লবীতে। তাকে নিয়ে বসুন্ধরাতে অভিযান চালিয়ে প্রতারণার ৪৫ হাজার টাকা এবং প্রতারণায় ব্যবহৃত স্মার্ট ফোন জব্দ করা হয়। তার বিরুদ্ধে প্রতারিত নারী বাদী হয়ে বিমানবন্দর থানায় মামলা দায়ের করেছেন।