করোনা : সাবধান হোন ব্রাশ-রেজারসহ এই ১০টি জিনিসে

আমরা প্রতিদিনই পরিবারের সদস্য, বন্ধুবান্ধবসহ ও অন্যান্য কাছের মানুষের সঙ্গে অনেক কিছুই ভাগাভাগি করে থাকি।

যেমন দুই বন্ধু একই কলম ব্যবহার করে, মা-ছেলে একই টুথপেস্ট ব্যবহার করে এমন। তবে এই ভাগাভাগির মাধ্যমে ছড়াতে পারে বিভিন্ন করোনাভাইরাসসহ বিভিন্ন ব্যাকটেরিয়া ও জীবাণু।

এই বিষয়ে ক্যালিফোর্নিয়ার একটি হাসপাতালের এক ডাক্তার বলেছেন, ‘মূলত আমরা সম্পর্কের খাতিরে বিভিন্ন বস্তু ভাগাভাগি করি না, আমরা জীবাণুও ভাগাভাগি করি।’

সেখানে ক্রিস্টিন আর্থুর নামের ওই ডাক্তার ১০টি জিনিস ভাগাভাগি করা থেকে দূরে থাকতে বলেছেন, যা থেকে ছড়াতে পারে বিভিন্ন ভাইরাস, ব্যাকটেরিয়া ও জীবাণু। সেখানে বলা হয়েছে, আমরা প্রতিদিনই এমন অনেক কিছু স্পর্শ করি যা থেকে জীবাণু ছড়ায়, কিন্তু জীবাণু বিশেষজ্ঞরা এ সব জিনিস ভাগাভাগি করেন না।

সেগুলো হলো-

১. কলম

গবেষকরা বলছেন, একটি কলমে টয়লেটের চেয়েও বেশি পরিমাণ জীবাণু থাকে। তাই ব্যাকটেরিয়া ও ভাইরাস থেকে দূরে থাকতে কলম ভাগাভাগি থেকে দূরে থাকতে বলা হয়েছে।

২. কাঁটাচামচ ও স্ট্র

অনেক সময় দেখা যায় দুই বন্ধু একই স্ট্র দিয়ে জুস পান করছেন। অথবা একই চামচ দিয়ে নুডুলস কিংবা অন্যান্য খাবার খাচ্ছেন। এতে একে অন্যের সঙ্গে জীবাণু ভাগাভাগি করছেন।

৩. ফাস্ট ফুডের প্লেট/ট্রে

রেস্টুরেন্ট কিংবা বাসায় একটি ফাস্ট ফুডের প্লেট অনেকেই স্পর্শ করে। এতে জীবাণু একজন থেকে অন্যের শরীরে প্রবেশ করে। তাই এর জীবাণু থেকে রক্ষা পেতে এমন কাজ করার ক্ষেত্রে নিরুৎসাহিত করা হয়েছে।

৪. মেকাপ এবং মেকাপের ব্রাশ

মেয়েরা প্রায় নিজেদের মেকাপ এবং এর অন্যান্য সরঞ্জাম কাছের মানুষদের সঙ্গে ভাগাভাগি করে। এর ফলে ছড়ায় জীবাণু। ফলে জীবাণু ও ব্যাকটেরিয়া থেকে রক্ষা পেতে এমন কাজ থেকে বিরত থাকতে হবে।

৫. মোবাইলফোন

ব্যক্তিগত মোবাইল ফোন অথবা বাসা/অফিসের ল্যান্ড ফোন অনেকে ধরে থাকেন। তাই জীবাণু থেকে রক্ষা পেতে এটা এড়িয়ে চলতে হবে।

৬. মোবাইলের হেডফোন

অনেকেই বন্ধু কিংবা ঘনিষ্ঠজনদের সঙ্গে হেডফোন ভাগাভাগি করেন। এতেও ছড়ায় জীবাণু ও ব্যাকটেরিয়া।

৭. তোয়ালে/গামছা

বিশেষ করে ভেজা টাওয়েলে বসবাস করে অনেক জীবাণু ও ব্যাকটেরিয়া। তাই ব্যাকটেরিয়ার সংক্রমণ থেকে বাঁচতে এটা ভাগাভাগি থেকে বিরত থাকতে হবে।

৮. রেজর

একটি রেজর একাধিক ব্যক্তি ব্যবহার। করে থাকে, সেক্ষেত্রে একজনের দেহের জীবাণু আরেকজনের শরীরে সহজে প্রবেশ করে থাকে।

৯. দাঁত মাজার ব্রাশ

করোনাভাইরাস মূলত লালা থেকেই বেশি ছড়ায়। সেক্ষেত্রে একজনের ব্রাশ অন্যজন ব্যবহার করে থাকলে সেক্ষেত্রে সহজে ছড়াতে পারে এ ভাইরাস ছাড়াও অন্যান্য ব্যাকটেরিয়া ও জীবাণু।

১০. নেইল কাটার

নখ কাটার যন্ত্র তথা নেইল কাটার একাদিক ব্যক্তি ব্যবহার করলে একজন থেকে আরেকজনের দেহে ছড়াতে পারে বিভিন্ন ভাইরাস-ব্যাকটেরিয়া ও জীবাণু। এতে জীবাণুর সংক্রমণ থেকে রক্ষা পেতে নেইল কাটার ভাগাভাগি থেকে বিরত থাকতে হবে।