খাগড়াছড়ির রাজবাড়িতে এক ব্যক্তির রহস্যজনক মৃত্যু

খাগড়াছড়ির মানিকছড়ি উপজেলার সদরের মং রাজবাড়িতে এক ব্যক্তির রহস্যজনক মৃত্যুতে চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে। এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে নির্যাতনের কারণে মৃত্যুর অভিযোগ উঠায় পুলিশ ৬ জনকে জিজ্ঞাসাবাদ করছে।

স্থানীয়দের অভিযোগ, শনিবার সন্ধ্যার পর অংগ্য মারমা (৫০) চোলাই মদ খেয়ে মাতলামি করতে করতে মানিকছড়িস্থ মং রাজবাড়িতে ঢুকে পড়েন। এ সময় প্রয়াত রাজকুমার চিংপ্রুসাইনের বড় ছেলে পার্সিভ্যাল সাইন রয় ওরফে লংকেশসহ ম্যানেজার আপ্রুমং মারমা, ডিকে লাব্রেসাইন, গংজ্যো, ক্যাজাই এবং রামপ্রু ওই ব্যক্তির হাত-পা রশি দিয়ে বেঁধে নির্যাতন করেন। এক পর্যায়ে অংগ্য মারমা ঘটনাস্থলে মৃত্যুর কোলে ঢুলে পড়েন।

খবর পেয়ে মানিকছড়ি থানার অফিসার ইনচার্জ আমির হোসেন রাজবাড়িতে যান এবং সংশ্লিষ্টদের জিজ্ঞাসাবাদ করেন। আমির হোসেন বলেন, ঘটনার আসল রহস্য জানতে ৬ জনকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। ময়নাতদন্তের পর মৃত্যুর কারণ জানা যাবে।

অংগ্য মারমা লাশ রোববার সকালে ময়নাতদন্তের জন্য খাগড়াছড়ি জেলা সদর হাসপাতালের মর্গে পৌঁছেছে।