গৃহবধূ ধর্ষণের অভিযোগের দুধবিক্রেতা আটক

কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে গৃহবধূকে ধর্ষণের অভিযোগে আমির হোসেন নামে এক দুধবিক্রেতাকে আটক করেছে পুলিশ। শনিবার দুপুরে উপজেলার কাশিনগর ইউনিয়নের জয়মঙ্গলপুর মধ্যমপাড়ায় ধর্ষণের ঘটনাটি ঘটে।

ভুক্তভোগী গৃহবধূ জয়মঙ্গলপুর মধ্যমপাড়া এলাকার সৌদি আরব প্রবাসী শাহ্ জালালের স্ত্রী।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, আমির হোসেন জয়মঙ্গলপুর এলাকায় গভীর দুধ ক্রয়-বিক্রয়ের কাজ করে আসছেন। সে সুবাদে দীর্ঘদিন প্রবাসী শাহ্ জালালদের বাড়ি থেকে অভিযুক্ত আমির তাদের গাভীর দুধ ক্রয় করে আসছেন। প্রতিদিনের মত শনিবার আমির ওই বাড়িতে গাভীর দুধ নিতে আসেন। এক পর্যায়ে প্রবাসী শাহ্ জালালের স্ত্রীকে গাভীর দুধ মাপার কথা বলে গোয়ালঘরে ডেকে নিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা করে। ব্যর্থ হয়ে মুখ গামছা দিয়ে হাত-পা গোয়ালঘরে থাকা রসি দিয়ে বেঁধে ধর্ষণ করেন। এক পর্যায়ে ওই গৃহবধূর হাতে ছুরি দিয়ে আঘাত করে। বিবস্ত্র করে মোবাইলে ভিডিও চিত্র ধারণ করে।

অভিযুক্ত আমির চলে যাওয়ার সময় বাড়ির পাশ্ববর্তী ঘরের মহিলারা ঘটনাটি টের পেয়ে বাইরে থাকা দোকানে বসা লোকজনকে জানায়। গ্রামবাসীরা আমিরকে আটক করে গাছের সাথে বেঁধে পুলিশে খবর দেয়।

চৌদ্দগ্রাম থানার ওসি আবদুল্লাহ আল-মাহফুজ জানান, ধর্ষণের ঘটনায় স্থানীয়রা এক দুধবিক্রেতাকে আটক করে। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ভুক্তভোগী গৃহবধূকে চিকিৎসার জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেছে। মেডিকেল রিপোর্টে জানা যাবে ওই গৃহবধূ ধর্ষণের শিকার হয়েছেন কিনা। বর্তমানে ধর্ষক আমির হোসেন পুলিশের কাছে আটক রয়েছে। অভিযোগ হলে কারাগারে পাঠানো হবে।