ঘটে গেল অপ্রীতিকর একটি ঘটনা, রেগে বেরিয়ে যান মুশফিক

জিম্বাবুয়ের বিরুদ্ধে সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে ৫০ বলে ৫৫ রানের অসাধারণ এক ইনিংস খেলেছেন মুশফিকুর রহিম। তবুও জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে চলতি ওয়ানডে সিরিজের তৃতীয় ও শেষ ম্যাচে একাদশ থেকে বাদ পড়েছেন অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহিম

মঙ্গলবার সিলেট স্টেডিয়ামে জিম্বাবুয়ের বিরুদ্ধে সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচ চলাকালীন সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এমন তথ্য জানিয়েছেন প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু। কিন্তু একাদশ থেকে বাদ পড়ার কথা শুনেই রেগে-মেগে মিটিং থেকে চলে গেলেন মুশফিক ।

জানা যায়, বিসিবি সভাপতি নাজমুল হোসেন পাপন সহ গত রোববার টিম হোটেলে মুশফিককে নিয়ে মিটিংয়ে বসেছিলেন কোচ রাসেল ডমিঙ্গো ও দুই নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু আর হাবিবুল বাশার। সেসময় পাকিস্তানে যেতে না চাওয়ায় জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে তৃতীয় ম্যাচে বাদ দেওয়ার কথা তোলায় রেগে গিয়ে সভা বয়কট করেন মুশফিক।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বিসিবির একজন পরিচালক জানান, ‘মুশফিককে পাকিস্তানে যেতে কোনো ধরনের চাপ দেওয়া হয়নি। সে তার আগের সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসে পাকিস্তানে খেলতে যাওয়ার বিষয়টি পুনর্বিবেচনা করবে কিনা জানতে চাওয়া হয়। নান্নুকে সে সরাসরি না বলে দেয়।

আমার জানা মতে, সেখানে কোনো চাপ বা উচ্চবাচ্যের কিছু ছিল না। প্রধান নির্বাচক যেটা বলেছেন, পাকিস্তানে না গেলে শেষ ম্যাচে তোমাকে বাদ দেওয়া হবে। পাকিস্তানে যে একাদশ খেলবে, শেষ ওয়ানডেতে সেই দল খেলাব। এ কথা শুনেই রেগেমেগে বেরিয়ে যায় মুশফিক। মাঠে এসে সেটা আবার মিডিয়াকেও বলেছে। সে যে কোচ ও নির্বাচকদের অপমান করল তাতে কোনো দোষ নেই! খেলোয়াড়দের এভাবে মিডিয়ার কাছে বলা ঠিক না।’