চোরাশিকারিদের হাতে প্রাণ গেল বিরলতম দুই সাদা জিরাফের!

কেনিয়ার জঙ্গল থেকে উদ্ধার হল দু’টি সাদা জিরাফের কঙ্কাল। চোরাশিকারিদের হাতে তাদের প্রাণ গিয়েছে বলে জানিয়েছেন সেখানকার বনকর্মীরা। বিশ্বের বিরলতম এই প্রাণীর আর একটি মাত্র বেঁচে রইল। সাদা জিরাফের প্রথম দেখা মেলে ২০১৭ সালে। তারপর থেকে কেনিয়ার এই জঙ্গলে গোটা বিশ্ব থেকে প্রচুর পর্যটক আসতেন এই জিরাফ পরিবারকে দেখতে।

কেনিয়ার ইসাকবিনি হিরোলা সংরক্ষিত এলাকার বন কর্মীরা জানিয়েছেন, বেশ কিছুদিন ধরেই দু’টি সাদা জিরাফকে দেখা যাচ্ছিল না। গোটা এলাকা তল্লাশি চালিয়ে তাদেরও দেখতে পায়নি,খুঁজতে গিয়ে পাওয়া যায় দু’টি কঙ্কাল। তখনই তাঁরা নিশ্চিত হন অস্ত্রের আঘাতে এদের মৃত্যু হয়েছে। চোরাশিকারিরা অর্থের লোভে এই দু’টি বিরলতম প্রাণীকে হত্যা করেছে।

মঙ্গলবার ইসাকবিনি হিরোলা সংরক্ষিত এলাকার ম্যানেজার মহম্মদ আহমেদনূর জানিয়েছেন, হাড়গুলি দেখে মনে হচ্ছে কয়েক মাস আগেই প্রাণীগুলিকে হত্যা করা হয়েছে। এটা সবার কাছে একটা খুব দুঃখের দিন। এই ঘটনা দেখিয়ে দিল, আরও বেশি সতর্ক না হলে কী পরিণাম হতে পারে। তাই ভবিষ্যতে আরও সতর্ক ও কড়া নজরদারি চালাতে হবে।

দু’টি সাদা জিরাফের হত্যার পর আর একটি মাত্র পুরুষ সাদা জিরাফ বেঁচে রইল। গত ৩০ বছরে,বিশ্বের এই উচ্চতম প্রাণীর ৪০ ভাগই মারা পড়েছে চোরাশিকারিদের হাতে।

২০১৭ সালে এই জঙ্গলে প্রথম দেখা যাওয়ার পর ন্যাশনাল জিওগ্রাফি, গার্ডিয়ান, ইউএসএ টুডে, ইনসাইড এডিশন জিরাফ পরিবারটিকে নিয়ে তথ্যচিত্র তৈরি করে। গোটা বিশ্ব জানতে পারে, জিরাফের রঙও সাদা হতে পারে।

জিনগত কারণে কিছু ক্ষেত্রে জিরাফে শরীরে স্বাভাবিক রং তৈরি হয় না। ফলে তারা সাদা দেখায়। তবে এমন উদাহরণ শুধু জিরাফ নয় আরও বহু প্রাণীর ক্ষেত্রেই দেখা যায়। সে ক্ষেত্রে তাদের স্বাভাবিক রঙের বদলে শরীরের রং সাদা হয়।