নিয়মিত যোগাভ্যাস করেন? ম্যাট কেনার আগে মাথায় রাখুন এগুলি

যোগসাধনা একদিনের ব্যাপার নয়। বহুদিন ধরে এর চর্চা করলে তবেই মেলে সমাধান। ঋক বেদের যুগ থেকে ভারতে যোগচর্চা চলে আসছে। ইন্দো-সরস্বতী সভ্যতার সময়ও যোগ সাধনা হত। দিন যত গড়িয়েছে যোগার ধরন পালটেছে। এখন এদেশে যোগ সাধনা হয়। কিন্তু আগেকার দিনের মতো প্রকৃতির মধ্যে থেকে তো আর যোগাসন করা এখন সম্ভব হয় না। তাই বাড়ির ড্রয়িং রুমকেই বেছে নেয় মানুষ। এর জন্য খুব গুরুত্বপূর্ণ যোগা ম্যাট।

ইতিহাস যদিও বলে যোগব্যায়াম যে যোগা ম্যাটের উপরই করতে হবে, এমন কোনও বাধ্যবাধকতা নেই। কিন্তু আজকের দিনে এটি গুরুত্বপূর্ণ কারণ নমনীয় কিছুর উপরে বসেই যোগাসন করা উচিত। সেই কারণেই সঠিক যোগ ম্যাট বেছে নেওয়া গুরুত্বপূর্ণ। তাই যোগা ম্যাট কেনার আগে অবশ্যই মাথায় রাখুন কয়েকটি বিষয়।

[ আরও পড়ুন: পুরনো কার্পেট ফেলে দিচ্ছেন? নতুন করে ব্যবহারের পদ্ধতি জানলে অবাক হবেন ]
ম্যাট কতটা পুরু হবে
কতটা আরামদায়কভাবে আপনি যোগাসন করতে পারবেন, তা এই যোগা ম্যাটের পুরুত্বের উপরেই নির্ভরশীল। ম্যাট যদি খুব পুরু হয়, তাহলে মাটির সঙ্গে আপনার কোনও যোগাযোগ স্থাপিত হবে না। শরীরের জন্য এটি একেবারেই ভাল নয়। কেনার আগে দেখে নেবেন ম্যাটের পুরুত্ব যেন ১/৪ ইঞ্চি হয়।

ম্যাটের উপাদান
ম্যাটের টেক্সার ও তার স্পঞ্জের উপর নির্ভর করে যোগা ম্যাটের মান। যোগাসনের সময় শরীর থেকে যে ঘাম নির্গত হয়, তা এই ম্যাট শুষে নেয়। তাই ম্যাটের উপাদান খুব গুরুত্বপূর্ণ। এছাড়া উপাদান খারাপ হলে ম্যাট চটচটে হয়ে যায়। তাই ম্যাট কেনার আগে উপাদান দেখে নিন। যোগাভ্যাসের জন্য বেশ কিছু ম্যাট রয়েছে বাজারে। যেমন বেসিক যোগা ম্যাট, ন্যাচরাল রাবার যোগা ম্যাট, প্লাস্টিক ইলাস্ট্রমের যোগা ম্যাট, সুতি এবং শণের যোগ ম্যাট ও পাটের যোগা ম্যাট। ভ্রমণের উপযোগী যোগ ম্যাটও রয়েছে বাজারে।

ম্যাটের আঠালো ভাব ও টেক্সচার
ঠিকমতো যোগাভ্যাস করার জন্য ম্যাটের আঠালো ভাব ও টেক্সটার ঠিক হওয়া জরুরি। যদি আপনি মসৃণ পছন্দ করেন তবে PVC ম্যাট কিনতে পারেন। ভাল গ্রিপ পেতে হলে একটু উচু ভাব থেক এমন ম্যাট কিনুন। তবে যোগা ম্যাট পরিষ্কার রাখা জরুরি। তবেই ম্যাটের আঠালো ভাব থেকে যায়। সেটি চলে গেলে ম্যাট বাতিল করে দেওয়াই বাঞ্ছনীয়।