বীর মুক্তিযোদ্ধা এবেন্দ্র সাংমার পাশে উপজেলা প্রশাসন

বকশীগঞ্জ উপজেলাধীন ধানুয়াকামালপুর ইউনিয়নের সাতানিপাড়া গ্রামের ক্ষুদ্র-নৃ গোষ্ঠীর অন্তর্ভুক্ত জামালপুর জেলার একমাত্র আদিবাসী বীর মুক্তিযোদ্ধা জনাব এবেন্দ্র সাংমা বেশ কিছু দিন যাবৎ শারীরিকভাবে অসুস্থ। বকশীগঞ্জ উপজেলার নবাগত উপজেলা নির্বাহী অফিসার জনাব মুন মুন জাহান লিজা যোগদানের পর তার অসুস্থতার খবর জানা মাত্রই এবেন্দ্র সাংমার সাথে যোগাযোগ করেন ও তার উন্নত চিকিৎসার জন্য ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের সহকারী পরিচালক মহোদয়ের সাথে কথা বলে তার চিকিৎসার যাবতীয় ব্যবস্থা করেন এবং সরকারিভাবে সার্বিক সহায়তা প্রদান করেন।

বীর মুক্তিযোদ্ধা এবেন্দ্র সাংমা পরবর্তীতে পিজি হাসপাতালে উন্নত চিকিৎসা নিয়ে শারীরিক অবস্থা কিছুটা ভালো হলে বাড়ি ফিরে আসেন। বাড়ি ফিরে আসার খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার তার সহধর্মী যিনি পেশায় চিকিৎসক তাকেসহ( ঢাকা পিজি হাসপালে এমডি রেসিডেন্সি কোর্সে অধ্যায়নরত) সপরিবারে বীর মুক্তিযোদ্ধা এবেন্দ্র সাংমার বাড়িতে যান ও তার সাথে কুশল বিনিময় করেন। এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন ধানুয়াকামালপুর ইউনিয়নের বীর মুক্তিযোদ্ধা জনাব মো: হামিদুল ইসলাম, উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা ও ধানুয়াকামালপুর ইউনিয়নের সংরক্ষিত আসনের সদস্য জনাব নুরজাহান বেগম। চিকিৎসা সংক্রান্ত বিষয়ে সার্বক্ষণিক খোঁজ খবর নেয়ায় ও চিকিৎসকদের মাধ্যমে সহযোগিতা অব্যাহত রাখায় উপজেলা নির্বাহী অফিসারের প্রতি তিনি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

পরবর্তীতে উপস্থিতিদের সম্মুখে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মহোদয় জানান যে, “অস্বচ্ছল বীর মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য আবাসন নির্মাণ শীর্ষক” প্রকল্পের আওতায় উপজেলা প্রশাসন কর্তৃক এবেন্দ্র সাংমার দাখিলকৃত আবেদনপত্রটি সুপারিশ সহকারে জেলায় প্রেরণ করা হবে এবং তার জন্য প্রশাসনের সহযোগিতা সবসময় অব্যাহত থাকবে। এসময় এবেন্দ্র সাংমা আবারো উপজেলা নির্বাহী অফিসার মহোদয়ের প্রতি আন্তরিক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন এবং সেই সাথে সকলের নিকট তিনি তার রোগমুক্তির জন্য দোয়া প্রার্থনা করেন।

বীর মুক্তিযোদ্ধাদের প্রতি উপজেলা প্রশাসন, বকশীগঞ্জ এর পক্ষ হতে শ্রদ্ধাভক্তি চিরদিন অম্লান থাকবে।