বোনের জন্য খোড়া কবরেই মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়লেন ভাই

মৃত্যুর পর যেন বিধাতাই এক করে দিলেন ভাই-বোনকে। বোনকে হারানোর শোক নিয়েই তার কবর খুড়তে নামেন ভাই রফিজ উদ্দিন হাওলাদার, আর বোনের জন্য খোড়া কবরেই মৃত্যুর কোলে ঢলে পরেন তিনি।

মর্মান্তিক এ ঘটনা ঘটেছে বাগেরহাটের শরণখোলা উপজেলার সাউথখালী ইউনিয়নের সুন্দরবনসংলগ্ন দক্ষিণ সোনাতলা গ্রামে।

বুধবার সকাল ৮টার দিকে লোকজন নিয়ে বড় বোন খাদিজা বেগমের (৭০) কবর খুঁড়তে যান ভাই রফিজ উদ্দিন হাওলাদার (৬৫)। প্রতিবেশীরাসহ কবর খুড়া শুরুও করেছিলেন তিনি। কবর খুড়া শুরু হওয়ার কয়েক মিনিটের মধ্যেই হঠাৎ রফিজ উদ্দিন ভাল লাগছেনা বলে মাটিতে পড়ে যান। এসময় সেখানেই মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন তিনি।

বুধবার সকাল ১০টায় সোনাতলা মাদরাসা মাঠে খাদিজা বেগমের জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। আর আসর নামাজ শেষে একই মাঠে জানাজা হয় ছোট ভাই রফিজ উদ্দিনের।

স্থানীয় সমাজসেবক মো. জাকারিয়া হোসেন ও শেখ আসাদ জানান, দক্ষিণ সোনতালা গ্রামের দিনমজুর রশিদ হাওলাদারের স্ত্রী খাদিজা বেগম মঙ্গলবার দুপুর সাড়ে বারোটার দিকে মারা যান। একই গ্রামের হামেজ উদ্দিনের ছেলে ও খাদিজা বেগমের ভাই নৌকা তৈরির মিস্ত্রি রফিজ উদ্দিন তার বোনের কবর খোড়ার কাজ করার সময় অসুস্থ হয়ে ঘটনাস্থলেই মারা গেছেন। এ ঘটনায় উভয় পরিবারে শোকের ছায়া নেমে এসেছে । আকষ্মিক এই মৃত্যুতে দুটি পরিবারের পাশে এসে দাড়িয়েছে প্রতিবেশীরা।

এলাকাবাসী চাদা তুলে আগামী শুক্রবার তাদের কুলখালী ও আটশত লোকের খাবার ব্যাবস্থা করবেন বলে জানিয়েছেন জাকারিয়া ও শেখ আসাদ ।