ভারতে বেড়াতে আসা ১৫ ইতালীয় পর্যটক করোনায় আক্রান্ত

ভারতের জয়পুরে বেড়াতে আসা ইতালির ১৫ জন পর্যটকের করোনাভাইরাস ধরা পড়েছে। এর ফলে ভারতে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হল ২১।

অল ইন্ডিয়া মেডিক্যাল সায়েন্স ইন্সটিটিউট বলছে, ভারতে লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। মঙ্গলবার সকালে যেখানে আক্রান্তের সংখ্যা ছিল মাত্র ৬ জন। বুধবার সেই সংখ্যা একলাফে দাঁড়ায় ২১ জন। যাদের ১৫ জনই ইতালির নাগরিক।

জানা গেছে, ইতালির ওই পর্যটক দলটি গত মাসে দিল্লিতে আসেন। পরে রাজস্থানে বেড়াতে যান তারা। সেখানে পরীক্ষার পর তাদের মধ্যে করোনার উপস্থিতি পাওয়া যায়। আপাতত তাদেরকে আলাদা করে রাখা হয়েছে।

পুনের ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অফ ভায়রোলজিতে তার থ্রোট সোয়াব ও রক্তপরীক্ষার পর তার শরীরে কভিড-১৯ -এর নমুনা মিলেছে। তার স্ত্রীর দেহেও বাসা বেঁধেছে এই রোগ। জয়পুরের সোয়াই মান সিং হাসাপাতালে ভর্তি আছেন তিনি।

৬৯ বছরের পর্যটক ও তার স্ত্রীর করোনাভাইরাস ধরা পড়ার পর ঘুম ছুটেছে রাজস্থান প্রশাসনের। এই দুই পর্যটক ইতালির ২৩ পর্যটকের দলের সঙ্গে ভারতে এসেছিলেন এবং তারা নানা পর্যটন স্থলে ভ্রমণ করেছেন। তাদের কারণে আরও অনেকের মধ্যে এই রোগ হওয়ার ঝুঁকি দেখা দিয়েছে।

ওই পর্যটক অসুস্থ হয়ে পড়ায় তাকে নিয়ে জয়পুরেই থেকে যান তার স্ত্রী। আর তারা যে দলের সঙ্গে এসেছিলেন, তারা রওনা দেন আগ্রার দিকে। এসএমএস মেডিক্যাল কলেজের প্রিন্সিপাল ডা. সুধীর ভাণ্ডারী জানিয়েছেন, ওই মহিলাকে আইসোলেশ ওয়ার্ডে রাখা হয়েছে। তার স্বামীর চিকিত্‍‌সা চলছে। তাকে ভেন্টিলেটরে রাখা হয়েছে।

করোনা আক্রান্ত সন্দেহে ৪ বিদেশী নাগরিকসহ মোট ১১ জনকে জয়পুরের হাসপাতালে কোয়ারেন্টাইন করে রাখা হয়েছে। তাদের রক্তের নমুনা পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে। বুধবার সেই পরীক্ষার রিপোর্ট পাওয়া যাবে।

ওই চার বিদেশীর মধ্যে ইতালির দুইজন এবং জাপান ও হংকংয়ের একজন করে নাগরিক আছেন। বাকি সাতজন ভারতীয়।

রাজস্থানের এসএমএস হাসপাতালের সুপারিনটেনডেন্ট ড. ডিএস মীনা বলেন, রাজস্থান ইউনিভার্সিটি অব হেলথ সায়েন্স হাসপাতালে ওই ১১ জনকে কোয়ারেন্টাইন করে রাখা হয়েছে। আজকে তাদের রিপোর্ট পাওয়া যাবে।করোনা আতঙ্কে অন্ধ প্রদেশের বিশাখাপত্তমে বাতিল হয়েছে ভারতীয় নৌ-বাহিনীর মহড়াও।