সম্ভ্রম রক্ষার হাতিয়ার যখন কানের ঝুমকা

রাস্তায় বের হলেই বেশিরভাগ নারী শ্লীলতাহানির শিকার হয়। অবাক হলেও সত্যি যে এই সমস্যা ঠেকাবে কানের ঝুমকা।

তবে এখন প্রশ্ন হলো– কীভাবে? আইন কিংবা পুলিশি নিরাপত্তা, কোনোভাবেই ধর্ষণ ঠেকাতে পারছে না। তবে গবেষকের নতুন আবিষ্কারের এক কানের দুলই হতে পারে আপনার সম্ভ্রম রক্ষার হাতিয়ার।

ধর্ষণ কিংবা শ্লীলতাহানির হাত থেকে রক্ষা পেতে এবার বিশেষ ধরনের কানের দুল আবিষ্কার করলেন বারানসির অশোক ইনস্টিটিউটের রিসার্চ অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট বিভাগের গবেষক শ্যাম চৌরাসিয়া।

নারীদের বিপদের হাত থেকে রক্ষা করতে প্রায় চার মাসের অক্লান্ত পরিশ্রমে বিশেষ ধরনের এই ঝুমকা তৈরি করেছেন তিনি।

গবেষকের দাবি, মাত্র ৪৫ গ্রাম ওজনের এই ঝুমকা দেখতে সাধারণ কানের দুলের মতোই। তবে একে নিছক গহনা ভাবলে ভুল হবে। বিশেষ এই কানের দুল ধর্ষণ ঠেকাবে।

চমকপ্রদ তথ্য হচ্ছে বিপদ বুঝলে গুলির আকারে বেরোবে লংকাগুঁড়ো। লাল ও সবুজ রঙের লংকাগুঁড়োর গুলির মাধ্যমে খুব সহজেই ঘায়েল করা যাবে ধর্ষককে।

কেমন দেখতে এই ঝুমকা?
অভিনব এই কানের দুলে ৭০ ভোল্ট করে মোট তিনটি ব্যাটারি রয়েছে। এক ঘণ্টা চার্জ দিলেই হবে। তাতেই এক সপ্তাহ ধরে মিলবে স্মার্ট ঝুমকার পরিষেবা।

মোবাইলের ব্লুটুথের সঙ্গে যোগাযোগ থাকলে হবে! তা হলেই কানের দুলের মাধ্যমে ১০০ এবং ১১২-এর মতো জরুরি পরিষেবার ফোন নম্বরও ডায়াল করা যাবে।
গবেষকরা বলেন, ওই দুল তৈরি করতে খরচ পড়েছে মাত্র সাড়ে চারশ টাকা।