হবিগঞ্জে চা বাগান থেকে বিলুপ্ত প্রজাতির বনরুই উদ্ধার

হবিগঞ্জের চুনারুঘাট উপজেলার নালুয়া চা বাগানের গোল টিলা নামকস্থান থেকে বিলুপ্ত প্রজাতির বনরুই উদ্ধার করা হয়েছে।  বুধবার (৪ মার্চ) দুপুর ২টার দিকে সাতছড়ি জাতীয় উদ্যানে বনরুইটিতে অবমুক্ত করা হয়। এর আগে সকাল ৮টার দিকে বাগানের কুয়া থেকে উদ্ধার করে স্থানীয়রা।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, চা বাগানের রিকশা চালক উসমান আলী সকালে ঘুম থেকে উঠে হাত মুখ ধোয়ার জন্য নলকূপে গেলে পাশের কুয়ার মাঝে নড়াচড়ার শব্দ শোনেন। কিছুটা ভয় আর কৌতূহল নিয়ে এগিয়ে যান কুয়ার কাছে। গিয়ে দেখেন একটি অপরিচিত প্রাণী কুয়ার ভেতর নড়াচড়া করছে। বিষয়টি জানাজানি হলে লোকজন খুন্তি দিয়ে মাটি খুড়ে কুয়ার ভেতর থেকে ওপরে নিয়ে আসেন বিলুপ্ত প্রজাতির বনরুই।  পরে সেটির কোমরে রশি বেঁধে বাড়ির আঙ্গিনায় আটকে রাখেন তিনি। মুহূর্তেই খবরটি রটে গেলে তার বাড়িতে শত শত লোকজন এসে ভিড় জমায় প্রাণীটিকে এক নজর দেখার জন্য।

এর ওজন ৫ কেজি এবং ৪ ফুট লম্বা হবে। বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা) জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক তোফাজ্জাল সোহেল বলেন, বনরুই একটি স্তন্যপায়ী প্রাণী।  এটি বিরল ও বিপন্ন প্রজাতির প্রাণী। হবিগঞ্জ বন বিভাগের ডেপুটি ফরেস্টার রেহান মাহমুদ জানান, সুস্থ অবস্থায় বনরুইটিকে উদ্ধার করে সাতছড়ি জাতীয় উদ্যানের গভীর জঙ্গলে অবমুক্ত করা হয়েছে। মুহূর্তের মাঝেই এটি গভীর জঙ্গলে হারিয়ে যায়।